Author name: Azgar

অস্থির জেনারেশন
সোশ্যাল মিডিয়া

এক অস্থির জেনারেশন তৈরী করছি আমরা

সত্যিই এক অস্থির জেনারেশন তৈরী করছি আমরা। বিলিভ ইট অর নট এই জেনারেশনের স্পেসিফিক কোন লক্ষ্য নাই, এদের আদর্শিক কোন এম্বিশন নাই এবং এদের পবিত্র কোন মিশন নাই। এরা কখনো বই পড়ে না, নিউজপেপার পড়ে না ও আউটডোর খেলাধুলায়ও এদের অনীহা রয়েছে। এই অস্থির জেনারেশন রৌদ্রে হাঁটতে পছন্দ করে না, বৃষ্টিতে ভিজতে চায় না। কাঁদা-মাটি, […]

টিয়ার শেল
অন্যান্য

পুলিশ টিয়ার শেল মারলে করণীয়

রাজনৈতিক কারনে হোক, কোন আন্দোলনের কারনে হোক, বা অন্য কোন কারনে হোক পুলিশ ছত্রভঙ্গ করার উদ্দেশ্যে টিয়ার শেল মারতেই পারে। এই টিয়ার শেল বেশ ক্ষতিকর। টিয়ারশেল থেকে নিজেকে রক্ষা করার স্বার্থে নিম্নোক্ত উপায় অবলম্বন করতে পারেন। ১. কাপড় কোন লেমনেড বা লেবু পানিতে চুবিয়ে নিবেন। সেই কাপড় দিয়ে নিজের নাক জড়িয়ে নিবেন। প্রয়োজনে সাথে গামছা

অনলাইন ইনকাম
শিক্ষনীয়

অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে আমার অভিমত

অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে এখন টুকটাক সবাই জানি। অনলাইনে যে সত্যিই ইনকাম করা যায় এটা কেউ অস্বীকার করতে পারবে না। তবে অনলাইন থেকে ইনকাম করাটা বেশ কঠিন। অনেক ধৈর্য ধরতে হয়। অনেক পরিশ্রম করতে হয়, লেগে থাকতে হয়। তবেই অনলাইন থেকে সত্যিকারের ইনকাম করা যায়। আমার একটু প্রিভিয়াস হিস্টরী শুনেন। ইন্টার পাশ করেছি ২০১৩ সালে। তারপর

ভালো থাকার মানে
শিক্ষনীয়

ভালো থাকার মানে বলতে আমরা কি বুঝি

ভালো থাকার মানে যদি আমরা বুঝতাম তবে চারদিকে এতো হট্টগোল, মারামারি, কাটাকাটি হয়তো হতো না। ভালো থাকার মানে কেবল নিজে ভালো থাকা নয়, চারপাশের সবাইকে নিয়ে ভালো থাকা। যে শুধু বলবে যে ভালো থাকা মানে শুধু নিজে ভালো থাকা সে আসলে বোকার স্বর্গে বাস করছে। ছাত্রছাত্রীরা তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভালো থাকতে চায়। শিক্ষক তার ছাত্রছাত্রীদের

সোরিয়াসিস রোগ
আমার জীবন

সোরিয়াসিস রোগ হলে আপনার যেসব নিয়ম মেনে চলা উচিত

সোরিয়াসিস খুব কমন একটা চর্ম রোগ। বাংলাদেশ তথা বিশ্বের বহু মানুষ এই রোগে আক্রান্ত। প্রতি বছরের ২৯ অক্টোবর সোরিয়াসিস দিবস পালন করা হয়। এই রোগের তেমন কোন চিকিৎসা নেই। কিছু থেরাপী দেয়া যায় যা অনেক ব্যয়বহুল। সাধারন মানুষের পক্ষে সেই চিকিৎসা নেয়া সম্ভব নয়। তবে আমার অভিজ্ঞতা থেকে কিছু বিষয় শেয়ার করবো। কারন, আমি নিজেও

কোটা আন্দোলন
অন্যান্য

কোটা আন্দোলন নিয়ে যে কথা কেউ বলেনি

কোটা আন্দোলন চলছে। সম্প্রতি ৫ জন মারা গেছে এবং আহত হয়েছে আরও অনেক। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সাথে সাথে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরাও এর সাথে যোগ দিচ্ছে। সমগ্র দেশের সাধারন ছাত্রছাত্রী একসাথে আন্দোলন করছে। অন্য কেউ নয়, কোন রাজনীতিবিদ নয়,  দেশের মেধাবীরা, ভবিষ্যতের কর্ণধার’রা আন্দোলন করছে – সুতরাং তাদের এ আন্দোলনকে আমি স্বাগত জানাই। দেশের ছাত্র সমাজ কখন

মার্কেটিং চাকরি
শিক্ষনীয়

মার্কেটিং চাকরি আসলে কাদের জন্য!

মার্কেটিং চাকরি সম্পর্কে আমরা কম বেশি সবাই জানি। এই চাকরি বাইরে থেকে খুব ফিটফাট হলেও ভেতরের দিকটা সদর ঘাটের মতো। তবে সফলতা সব জায়গায় থাকে, কম আর বেশি। মার্কেটিং চাকরি করতে যারা আসে আপনি যদি জরিপ করেন তাহলে দেখবেন যে, বেশিরভাগই বিভিন্ন জায়গায় ব্যর্থ হয়ে শেষ অপশন হিসেবে আসে। তাহলে যারা শেষ অপশন হিসেবে এখানে

দলিল
সোশ্যাল মিডিয়া

দলিল লিখতে ক্রেতা বা গ্রহিতার যে বিষয়ে সচেতন থাকা জরুরী

সম্পত্তির দলিল লেখার জন্য ‘দলিল লেখক’ এর কাছে দায়িত্ব দিয়েই ক্রেতার দায়িত্ব শেষ হয়ে যায় না। কেননা পরবর্তীতে দলিলে ভুল পরিলক্ষিত হলে দলিল লেখক নয় বরং এর মাশুল গুনতে হবে ক্রেতাকেই। তাই এতে ক্রেতার সচেতনতা আবশ্যক। সম্পত্তির দলিল লেখার ক্ষেত্রে নিম্নলিখিত বিষয়ে ক্রেতার লক্ষ্য রাখা প্রয়োজন: ১. দলিল সম্পাদনকারী তথা জমি দাতা (বিক্রেতা) আইনের দৃষ্টিতে

আফসোস
সত্য ঘটনা অবলম্বনে

মৃত্যুর পরেও কিছু মানুষের আফসোস করতে হবে যে কারনে

আমরা মানুষ এবং মৃত্যুর পরে আমাদের আরেকটি জীবন রয়েছে। সেই জীবনের কোন শেষ নেই। কিন্তু পৃথিবীতে আমরা এমন কিছু বিষয় রেখে যাই যার জন্য মৃত্যুর পরেও হয়তো আফসোস করতে হয়। এরকম অনেক বিষয় রয়েছে। আজ বাস্তবে ঘটে যাওয়া একটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো আপনাদের সাথে। এই ঘটনা আমার চোখের সামনে ঘটেছে। আসলে আফসোসের বিষয়টি উহ্য।

অপমানিত হওয়া
সত্য ঘটনা অবলম্বনে

অপমানিত হওয়ার আগেই সাবধান হোন

আমি একটা বেসরকারি কোম্পানীতে চাকরি করি। মূলত বলা যায় সেলস ম্যান। খুলেই বলি। আমি একটা নামকরা ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানীতে মেডিকেল ইনফরমেশন অফিসার হিসেবে কাজ করছি। আমাদের কাজ হচ্ছে ডাক্তারকে নিয়মিত ভিজিট করা অর্থাৎ নতুন/পুরাতন প্রোডাক্ট এর ইনফরমেশন দেয়া আর ফার্মেসীগুলো থেকে অর্ডার নেয়া। আমি সবসময় সম্মানের সাথে কাজ করেছি, কখনো অপমানিত হবো এমন ভয় মনের মধ্যে

ঢাকা শহর
সত্য ঘটনা অবলম্বনে

ঢাকা শহর রঙিন কিন্তু জীবন রঙিন নয়

ঢাকা শহর অনেকের কাছে স্বপ্নের মতো। কেউ কেউ মনে করেন, ঢাকা শহরে আসলেই বুঝি একটা রুটি রোজগারের ভালো ব্যবস্থা হয়ে যাবে। বিষয়টি মোটেও সত্য নয়। হ্যা, এখানে অনেক কাজ-কর্ম রয়েছে কিন্তু একটি মানসম্মত কিংবা মোটামুটি ভালো মানের কর্ম খুঁজে নিতে আপনার পরিচিত মানুষ থাকতে হবে যে কিনা আপনাকে সাহায্য করতে পারে। সেই জন্যই হেডলাইনটায় এমন

রাগ
অন্যান্য

আপনি কেন রাগ করেন তা কি আপনি জানেন!

রাগ মানুষের সহজাত বৈশিষ্ট্য। কোন না কোন কারনে মানুষ রাগ করবেই। আপনি যতোই নিশ্চুপ থাকেন না কেন, আপনার সাথে রাগারাগি হবেই। আপনি যতোই মুখে বলুন না কেন আপনার কোন শত্রু নেই, কিন্তু আপনার শত্রু তৈরী হবেই। পৃথিবীটাই আসলে এরকম। আমি যেদিন এই পোস্ট লিখছি সেদিন আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গুলি খেয়েছেন। ভাগ্য ভালো যে

Scroll to Top